পুতিন যে আশা করলেন তালেবানের কাছে

আফগানিস্তানে নতুন সরকার ঘোষণা দিতে যাচ্ছে তালেবান। সরকার ঘোষণার আগেই এক বক্তব্যে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন আফগানিস্তানে তালেবানের ব্যবহার সুশীল হবে বলে আশাবাদ ব্যাক্ত করেছেন।তার মতে, আফগানিস্তানে তালেবানের ব্যবহার সুশীল হবে যাতে বিশ্ব সম্প্রদায় তালেবানের সঙ্গে কূটনীতিক যোগাযোগ রক্ষা করতে পারে।

শুক্রবার রাশিয়ার পূর্ব শহর ভ্লাদিভসটকে ইস্টান ইকোনোমিক ফোরামে এক ভাষণে এ কথা বলেন।

পুতিন বলেন, আফগানিস্তানের ভাঙনে রাশিয়ার কোনো স্বার্থ নেই। যদি এটি ঘটে, তাহলে কথা বলার কেউ থাকবে না।

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট বলেন, তালেবানকে অতিদ্রুত সভ্য মানুষের পরিবারে প্রবেশ করতে হবে, তাহলে তাদের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করা সহজ হবে।

আফগানিস্তানের দীর্ঘসময়ের যুদ্ধ শেষ করে গত মাসে মার্কিন নেতৃত্বাধীন বাহিনীর প্রত্যাহার বিপর্যয়ের মধ্যে দিয়ে শেষ হয়েছে বলেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট। পুরো সময়ে তারা আফগানিস্তানে ১ দশমিক ৫ ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলার ব্যয় করেছে। যেখানে ফলাফল শূন্য।

গত ১৫ আগস্ট কাবুল দখল করে তালেবান যোদ্ধারা। এরপরই দেশটি থেকে পালিয়ে যায় প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনি। সর্বশেষ সোমবার রাতে কাবুল বিমানবন্দর ত্যাগ করে শেষ মার্কিন সেনা। পরে কাবুল বিমানবন্দরের নিয়ন্ত্রণ নেয় তালেবান যোদ্ধারা। শুক্রবার তালেবান নতুন সরকারের ঘোষণা দেবে বলে জানায় আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলো।